30 September 2019

বক্তব্য শেষে রাবি উপাচার্যের দেয়া ‘জয় হিন্দ’ স্লোগান আমাদের কিসের বার্তা দিচ্ছে!


স্টাফ রিপোর্টার।। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধুস্লোগানের পর জয় হিন্দস্লোগান দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান! একজন স্বাধীন দেশের নাগরিক হয়ে অন্য দেশের স্লোগান দেয়ার বিষয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ সিনেট ভবনে যৌথভাবে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে রাবি উপাচার্য জয় হিন্দস্লোগান দেন বলে অনুষ্ঠানে উপস্থিত একাধিক শিক্ষক নিশ্চিত করেছেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মণিষা দে। সে বলে, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান স্যার তার বক্তব্যের শেষ দিকে জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধুবলার পর জয় হিন্দস্লোগান দিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকরা বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে অন্য একটি দেশের স্লোগান দেয়ার যৌক্তিকতা নেই। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে খাটো করে দেখা হয়। একটি দেশের অভ্যন্তরীণ একটি অনুষ্ঠানে অন্য একটি দেশের স্লোগান দেয়াকে রাষ্ট্র বিরুদ্ধাচরণ বলেও মনে করছেন তারা।

অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ইলিয়াস হোসেন বলেন, একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি হয়ে তিনি কখনও এ ধরনের স্লোগান দিতে পারেন না। জয় হিন্দহচ্ছে অখণ্ড ভারতের একটি স্লোগান। বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভোম রাষ্ট্র। সেদিক থেকে অখণ্ড ভারতের স্লোগান দেয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে খাটো করা হয় বলে দাবি করেন তিনি।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইতিহাস বিভাগের কয়েকজন শিক্ষক। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা বলেন, একটি দেশের অভ্যন্তরীণ অনুষ্ঠানে অন্য একটি দেশের স্লোগান দেয়া রাষ্ট্রবিরোধী আচরণ। একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে এ ধরনের স্লোগান দেয়ার মাধ্যমে ভারতের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করা হয় এবং দেশ কে ভারতের অঙ্গরাজ্য বলে মনে করা হয়, যা কোনোভাবে কাম্য নয়।


শেয়ার করুন

1 comment: